Let's talk

Madrid Election Talk: এটি সেই প্ল্যাটফর্ম যা অধিবাসীদের ভোট দিতে সহায়তা করে

21 April 2021

ভোট দিতে পারবেন না?ভোট না দিতে পারলে ও তারপরও আপনারা এ কনভারসেশন এর পার্ট হতে পারেন

মাদ্রিদ ইলেকশন টক বানানো হয়েছে যাতে মাদ্রিদের বাসিন্দারা বুঝতে পারবে এই ইলেকশন, ০৪ মে ২০২১, কিভাবে সাহায্য করতে পারবে যাদের ভোটের অধিকার আছে। আমরা যদি আমাদের লোকাল পলিটিক্স বোঝাতে পারে তাহলে আমরা আমাদের বন্ধুদের কে, আমাদের কাজের জায়গা, আমাদের প্রতিবেশীদের এবং আমাদের নিজস্ব ফ্যামিলিকে বোঝাতে পারব, হেল্প করতে পারবো, আর লেফট পার্টি সাপোর্ট করতে পারবো এবং Ayuso কে পুনর্নির্বাচিত থেকে আটকাতে পারবো।

মাদ্রিদ – এর বাড়িওস অফ দি সাউথ সবথেকে উপস্থাপিত প্রতিবেশী l

লাভাপিএস, উসেরা, কারাবাঁচেল, ভাললেকাস, অরকাসীতাস আর ভিলাভেরদে – এই সব জায়গাগুলি তে প্রচুর পরিমাণ এর অভিবাসী বাসিন্দা এবং তা ছাড়াও কিছু কম শতাংশের লোক আছে যাদের ভোট দেওয়ার অধিকার আছে। লাভাপিএস – এ, যেখানে সব থেকে অধিকাংশ মানুষ বহুসংস্কৃতির, প্রায়ে তিন ভাগের মধ্যে এক ভাগ  বিদেশী পাসপোর্ট রাখে আর তারা এখানে রেজিস্টার্ড হয়েও, কর বা ট্যাক্স দেওয়ার পরেও, তাদের কোনো অধিকার দেওয়া হয়েনা আঞ্চলিক আর রাষ্ট্রীয় ভোট দেওয়ার জন্য।

ভোটে দওয়ার অধিকার না দেওয়া মানে সমস্ত প্রতিবেশী এবং সম্প্রদায়-এর বলার এবং তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার কে শেষ করে দেওয়া।

এই প্রতিবেশী এবং সম্প্রদায়েগুলো সেইগুলি যাদের সাফিয়া এল আদ্দাম, একজন লেখিকা আর সক্রিয় অংশগ্রহণকারী, আনতে চেয়েছিল একটি স্থানে যেটা উনি করছেন এটার মাধ্যম দিয়ে Votar es un Privilegio, যেটি উনি এপ্রিল ২০১৯ শালের রাষ্ট্রীয় ভোটের এক মাস আগে বার করেছিলেন। এটি সব শুরু হয়েছিল ওনার এই বার্তা দিয়ে:

তুমি আমাকে অদৃশ্য করতে চাইছিলে জবে থেকে আমি জন্মেছি। কিন্তু আমি তবে থেকে চেচিয়েছি যেহেতু আমার আওয়াজ আছে। আর তুমি আমাকে কখনো চুপ করাতে পারবেনা।

এই প্লাটফরম বা সোশ্যাল মিডিয়ার স্থান টি যেটার অর্থ “ভোট দেয়া একটি অধিকার”, আসলে বানানো হয়েছিল সেই লোকেদের জন্য যারা স্পেন এ জন্মগ্রহণ নেওয়ার পরেও স্পেন এর নাগরিকত্ব এখনো অবধি পায়েনি। সাফিয়া তাদের-ই মধ্যে একজন, সে প্রাপ্তবয়স্ক হয়েও ভোট দিতে পারে না আর খুব ঠিক ভাবেই স্পেন এর গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা কে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে বর্ণবাদী বলে।

ওরা আমাদের কে অদৃশ্য করতে চায় কিন্তু ওরা পারবেনা। এই ভোটের নির্বাচনে আমাদের আওয়াজ আমরা আমাদের সবাইকে শোনাবো।

Votar es un Privilegio প্লাটফরম টি দু বছর আগে মুক্তি পাওয়ার পর, সাফিয়া যেকারোর জন্য প্লাটফিরম টি খুলে দিয়েছে যে স্পেন এ থাকে কিন্তু ভোটে দিতে পারেনা যেকোনো কারণ এর জন্য।

কিভাবে এটি কাজ করে:

যারা ভোটে দিতে চায় না (প্রায়শই নৈরাজ্যবাদবাদী বা যে কেউ সাধারণভাবে রাজনীতি থেকে বঞ্চিত হন) তারা নিজেদের ভোটে অন্য কাউকে দিতে পারে যে ভোট দিতে ভালোবাসে কিন্তু পারেনা দিতে। Votar es un Privilegio সেই সব লোকেদের সঙ্গে সংযুক্ত থাকার জন্য সাহায্য করে। ওখান-এ দুটো নতুন পরিচয় নিজেরআ একটি বারতালাব শুরু করতে পারে এবং নিজেদের বোঝাতে পারে কাকে ভোটে দেওয়া উচিত। সাইন-আপ পদ্ধতি টি প্রায় ২০ সেকেন্ডস লাগে, আর তুমি তোমার কন্ট্যাক্ট এর সঙ্গে পরিচয় করে দেয়া হবে এক সপ্তাহের মধ্যে।

সাফিয়া দাবি করে ওনার ওয়েবসাইটে যে এই প্লাটফরম টি হাজার হাজার অভিবাসী দের ভোট দেওয়ার জন্য সুবিধে করে দিয়েছে – যেটি এরম চাপের ভোটের পরিস্থিতিতে, নির্বাচনের ভবিষত ঘুরিয়ে দিতে পারে।

  • Register here (এখানে রেজিস্টার করুন ভোট চাওয়া বা দেওয়ার জন্য।)
  • Follow @votaresunprivelegio on Instagram. (ফলও করুন ইনস্টাগ্রামে।)
  • Follow Safia on @hijadeinmigrantes on Instagram. (সাফিয়া কে ইনস্টাগ্রামেও ফললো করতে পারেন।)

You may also like

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

SUBSCRIBE FOR

A FREE COPY OF MY

‘WEEKEND GUIDE FOR LOCALS’

 

SUBSCRIBE TO MY MONTHLY

NO-FRILLS NEWSLETTER!